Thursday, October 22, 2020
Home ছোট ব্যবসা হাতঘড়ির স্ট্র্যাপ বানিয়ে ব্যবসা

হাতঘড়ির স্ট্র্যাপ বানিয়ে ব্যবসা

আজকের দিনে যে কোন ব্যক্তি খুব কম মূলধনের সাহায্যে চামড়ার তৈরি হাতঘড়ির স্ট্র্যাপ বা ফিতে বানিয়ে বাড়ি থেকে একটি ব্যবসা শুরু করতে পারেন। এর উৎপাদন প্রক্রিয়া খুবই সহজ এবং আপনি এটা পার্ট টাইম কাজ হিসেবে বেছে নিতে পারেন। মানুষের মধ্যে হাত ঘড়ি পরার প্রচলন বৃদ্ধি পায় হাতঘড়ির স্ট্র্যাপ – এই পণ্যের চাহিদা বাজারে ব্যাপকভাবে বেড়েছে।

এই পণ্য তৈরি করার জন্য প্রাথমিকভাবে কাঁচামাল হিসেবে চামড়া ব্যবহার করা হয় যা ভারতের বাজারে সহজলভ্য। সমীক্ষায় দেখা গেছে হাতঘড়ির ব্যবহারের পরিমাণ দিনের পর দিন বাড়ছে। আপনি প্রথমে ব্যবসাটি ছোট স্কেলে খুললেও পরবর্তীকালে এটিকে মাঝারি ও বৃহত্তর ভাবে গড়ে তুলতে পারেন।

স্ট্র্যাপ তৈরীর মেশিন সরঞ্জাম ও ইউনিট সেটআপ

আমরা দুটো উপায়ে হাত ঘড়ির স্ট্র্যাপ তৈরীর কাজ শুরু করতে পারি। অর্ধ স্বয়ংক্রিয় মেশিনের সাহায্যে ও সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় মেশিনের সাহায্যে। অর্ধ স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে স্ট্র্যাপ বানানোর জন্য আপনার নিম্নলিখিত মেশিনারি দ্রব্যগুলি প্রয়োজন হতে পারে

  • ক্লিক করা প্রেস
  • চামড়া স্কাইভিং মেশিন
  • স্টাম্পিং মেশিন
  • পাঞ্চিং মেশিন
  • প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম

আরও পড়ুন : আপনার ব্যবসার জন্য উপযুক্ত জায়গা নির্বাচন,লাইসেন্স ও মেশিন কেনার ঠিকানা

সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে স্ট্র্যাপ তৈরি করলে আপনার অনেক কম খরচে অনেক বেশি উৎপাদন করা সম্ভব হবে। আপনি যে স্বয়ংক্রিয় মেশিন কিনবেন তাতে সাধারনত এই সমস্ত ফিচার থাকবে –

  • প্রয়োজনীয়তার উপর নির্ভর করে সিঙ্গেল স্ক্রু বা ডবল স্ক্রু প্রযুক্তি।
  • ডজিং পাম্প
  • ডবল কলম ফিল্টার
  • সিঙ্গেল স্ট্র্যাপ বা ডবল স্ট্র্যাপ
  • স্ট্র্যাপের পুরুতা : ০.৫ থেকে ১.২ মিমি
  • সর্বোচ্চ আউটপুট : ৫০০ কেজি/ ঘন্টা
  • পাওয়ার সাপ্লাই : ৩৮০ ভোল্ট/ ৩ ফেজ/ ৫০ হার্জ

দুই থেকে তিন জন অপারেটরের দ্বারা আপনি উৎপাদনের প্রক্রিয়াটি স্বয়ংক্রিয় মেশিনের সাহায্যে সম্পূর্ণ করতে পারবেন।

কাঁচামাল

চামড়ার হাত ঘড়ির স্ট্র্যাপ তৈরি করতে যে সমস্ত কাজ আমাদের প্রয়োজন হয় তা হলোঃ

  • সম্পূর্ণ উপরের চামড়া
  • আস্তরণ এর চামড়া
  • বাকেলস
  • সুতো
  • আঠা
  • প্যাকেজিং এর উপকরণ

পদ্ধতি

চামড়ার হাতঘড়ির স্ট্র্যাপ তৈরি করার প্রথম ধাপ টি হল স্ট্র্যাপ ডিজাইন করা। তারপর ডিজাইন মতো চামড়া থেকে ওই অংশটি কেটে নেওয়া হয়। এর উপর প্রান্ত গুলিকে ভালো হবে স্কাইভ করা হয়। এরপর পান্ত গুলিতে আঁঠা হয় এবং ভাঁজ করে মুড়ে দেওয়া হয়। এর পরেই চামড়ার উপর একটি বাইরের আস্তরণ যুক্ত করা হয়। এরপর এর সাথে বাকেল গুলি লাগিয়ে দেওয়া হয়, এখন এটি ছেলের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত।

সেলাই হয়ে গেলে আপনাকে একবার ভালোভাবে দেখে নিতে হবে যে পণ্যটি সুন্দর ভাবে তৈরি হয়েছে কিনা। এরপর পণ্যটি প্রয়োজন প্যাকিং সামগ্রী দিয়ে প্যাকিং করে বাজারে বিক্রির জন্য পাঠিয়ে দিতে হবে। এছাড়া আপনি পণ্যটি অ্যামাজন বা ফ্লিপকার্ট থেকে অনলাইনেও বিক্রি করতে পারেন।

Source : Internet

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Most Popular

NEET 2020 result পরীক্ষার ফলাফল – লাইভ আপডেটস

জাতীয় পরীক্ষা সংস্থা NEET 2020 ফলাফল জানানোর তারিখ ঘোষণা করেছে। NEET 2020 পরীক্ষার ফলাফল সর্বশেষতম সংবাদ অনুযায়ী 12 অক্টোবর বেলা একটায়...

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্প

কন্যাশ্রী প্রকল্প | Kanyashree Prakalpa কন্যাশ্রী প্রকল্প অর্থনৈতিকভাবে পিছিয়ে পড়া পরিবারের মেয়েদের জীবন ও অবস্থার উন্নয়নে পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা...

নিজ গৃহ নিজ ভূমি প্রকল্প

বিভাগগুলির নাম: (১) ভূমি ও ভূমি সংস্কার বিভাগ (২) শরণার্থী ত্রাণ ও পুনর্বাসন বিভাগ নিজ গৃহ নিজ ভূমি প্রকল্পের...

সুফল বাংলা | Suphal Bangla

বিভাগের নাম: কৃষি বিপণন বিভাগ সুফল বাংলা প্রকল্পের উদ্দেশ্য: সুফল বাংলা প্রকল্পটি ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৪ থেকে মোবাইল ভ্যানে ঘরে...